চাঁদপুর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হতে চান হুমায়ুন কবির খান

চাঁদপুর: আসন্ন চাঁদপুর পৌর আওয়ামী লীগের সন্মেলনে তৃনমুলের চাহিদার প্রতি সন্মান জানিয়ে চাঁদপুর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হতে চান চাঁদপুর পৌর সভার সাবেক প্যানেল মেয়র, পৌর আওয়ামী লীগের পর পর দু’বার সাংগঠনিক সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালনকারী নেতা মোঃ হুমায়ুন কবির খান।

তিনি স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম গুলোকে দেওয়া সংক্ষিপ্ত এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এবারের পৌর আওয়ামী লীগের সন্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রাথী হওয়ার ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, আমি ছাত্র জীবন থেকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশকে লালন করে ছাত্র লীগের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের রাজনীতি শুরু করি। দলের সেই দুঃসময় থেকে অদ্যাবধি এদলের রাজনীতি করছি। জীবনে কোনো দিন কোনো লোভ লালসার প্রতি নজর দেইনি এবং দীর্ঘ ৩ বার আমাদের দল রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত আজো কেউ বলতে পারবে না, দলের সাইনবোর্ড ব্যবহার করে দলের সুনাম নষ্ট করেছি। ইনশাআল্লাহ আগামীতেও আমি দলের সুনাম অক্ষুণ্ণ রেখে এই দলের রাজনীতি করতে চাই। দল আমাকে কোনো পদে রাখুক বা না রাখুক আমার জন্ম আওয়ামী পরিবারে, আমৃত্যু এ দলের রাজনীতি করবো। তিনি বলেন, আমি দলের তৃণমূল নেতাকর্মীদের চাহিদার প্রেক্ষিতে পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছি। আশা করছি শীর্ষ নেতৃবৃন্দ আমার সকল দিক বিবেচনা করে আমাকে দলের উক্ত পদে অধিষ্ঠিত করবেন।

উল্লেখ্য হুমায়ুন কবির খানের পিতা মরহুম শফিকুল ইসলাম খান মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের স্বাধীনতা সংগ্রাম কমিটির সহ অর্থ সম্পাদক, তৎকালীন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য, পৌর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, সহ সভাপতি ও উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

হুমায়ুন কবির খান ১৯৮৮ সাল থেকে ছাত্রলীগের মাধ্যমে এদলের রাজনীতি করেন। তিনি মধু সুদন উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও পৌর ছাত্র লীগের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে তিনি ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, পৌর আওয়ামী লীগের সদস্য এবং ২০০৩ সাল থেকে পর পর দু’বার তিনি পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে অদ্যাবধি এই দায়িত্বে রয়েছেন। তিনি চাঁদপুর পৌর সভার ৬ নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর ও পৌর সভার সাবেক প্যানেল মেয়রের দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি  ১৯৯৬  সাল থেকে সকল নির্বাচনে লেডী প্রতিমা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়কের দায়িত্বে রয়েছেন।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম