চাঁদপুর-ঢাকা যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল শুরু

চাঁদপুর : ঘুর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবের কারণে সোমবার (২৪ অক্টোবর) বেলা ১১টায় চাঁদপুর-ঢাকা, চাঁদপুর-নারায়নগঞ্জের মধ্যে সব ধরণের যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) দুপুর ১২টা থেকে চাঁদপুর-ঢাকার মধ্যে লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে। তবে তুলনামূলক ঘাটে যাত্রী সংখ্যা কম।

চাঁদপুর বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তা শাহাদাত হোসাইন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ঘুর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে চাঁদপুরও ঝুঁকিপূর্ণ জেলার আওতায় ছিল। ৩ নম্বর নৌ সংকেত ছিল আমাদের বন্দরে। আজকে তা নামিয়ে ১ নম্বর নৌ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। যার ফলে আমরা চাঁদপুর-ঢাকার মধ্যে লঞ্চ চলাচল করার জন্য অনুমতি দিয়েছি। তবে পরিস্থিতি দেখে ঢাকা-নারায়নগঞ্জের মধ্যে ছোট লঞ্চগুলো চলাচল শুরু হবে।

এদিকে লঞ্চঘাটে গিয়ে দেখাগেছে মাত্র দুটি লঞ্চঘাটে রয়েছে। একটি হচ্ছে এমভি রফ রফ-২ এবং অপরটি হচ্ছে এমভি ইমাম হাসান। দুপুর ১২টায় এমভি রফরফ-২ গতকাল থেকে আটকা পড়া যাত্রীদের নিয়ে ঢাকা সদরঘাটের উদ্দেশ্যে চাঁদপুর লঞ্চঘাট ছেড়ে যায়। কিন্তু সদরঘাট থেকে কোন লঞ্চ চাঁদপুরে এসে পৌঁছায়নি।

বিআইডাব্লিউটিএ’র চাঁদপুর লঞ্চঘাটে কর্মরত ট্রাফিক পরিদর্শক শাহ্ আলম জানান, গতকাল থেকে লঞ্চ বন্ধ থাকায় সিডিউল ঠিক থাকবে না। কারণ যাত্রী সংখ্যা কম। অনেক লঞ্চ নিরাপদে নিয়ে রাখা হয়েছে। যাত্রী সংখ্যা বাড়লে পর্যায়ক্রমে সিডিউ ঠিক হবে।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম