চাঁদপুর কোর্ট স্টেশনে পুলিশের উচ্ছেদ অভিযান 

ছবি: সংগ্রহীত।
চাঁদপুর:  চাঁদপুর শহরের ব্যস্ততম এলাকা কালী বা‌ড়ি কোর্ট স্টেশন রেলওয়ে প্ল্যাটফর্ম। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী প্লাটফর্মের  সামনের অংশে ছাবরা দীর্ঘদিন যাবৎ ফলের ব্যবসা করে যাচ্ছে। এ সকল অসাধু ব‌্যবসা‌য়িরা কোর্ট স্টেশটির দা‌য়ি‌ত্বে থাকা মাস্টা‌রের কথা কর্নপাত ক‌রেন না। বারংবার বলা ও নো‌টিশ স‌ত্ত্বেও তার প্লাটফর‌টির জু‌ড়ে ফ‌লের ডালা সা‌জি‌য়ে ব‌্যাবসা কর‌ছে।
স্টেশন মাস্টা‌রের পা‌শাপা‌শি চাঁদপুর রেলওয়ে থানা পুলিশ বহুবার ঘোষণা দেওয়া সত্ত্বেও সব অসাধু ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সরিয়ে নেয়নি।
যার ফলে সোমবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে চাঁদপুর রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মুরাদ হোসেন বাহারের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন।
চাঁদপুর রেলওয়ে থানার অফিসার মুরাদ হোসেন বাহার বলেন,  আমরা এসব অসাধু ব্যবসায়ীদেরকে অনেক আগে থেকে দোকান সরিয়ে নেওয়ার জন্য নোটিশ দিয়েছি। তাদেরকে বহুবার সতর্ক পর্যন্ত করা হয়েছিল। তারা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল না হয়ে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে ব্যবসা করে যাচ্ছে বলে আজ আমরা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছি। অ‌ভিযা‌নকা‌লে জয়নাল, হা‌শিম, আ‌লীসহ চারজন‌কে  আটক ক‌রে  ‌কো‌র্টে প্রেরন করা হয়। আমরা চাই রেলের যাত্রীরা যেন নির্বিঘ্নে এ প্লাটফর্মে  চলাচল করতে পারে। যাত্রীরা  যেন কোনো ভাবেই এ প্লাটফর্মে এসে  হয়রানি শিকার না হয়। প্লাটফর্মের সম্মুখভাগে ও গেটম্যানের ঘরের সামনে যারা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছে তারা রেল যাত্রীদের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি করছে। আজকে আবারো হুশিয়ার করে উচ্ছেদ করা হয়েছে। পরবর্তিতে তাদের বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
কোর্ট স্টেশ‌নের দা‌য়িত্বরত কর্মকর্তা মোঃ আবু কাউছার ক‌লেন, দীর্ঘদিন ও‌সি জিআর‌পি‌কে লি‌খিতভা‌বে মে‌মো ও মৌ‌খিকভা‌বে জানি‌য়েছি। জিআর‌পি বেশ ক‌য়েকবার আইনী ব‌্যাবস্থা নি‌ওে তারা বারবার বেআইনীভা‌বে দোকান বসা‌চ্ছে। তারা যা‌তে প্লাটফর‌মের মু‌খ দখল ক‌রে  বস‌তে না পা‌রে সেজন‌্য জিআর‌পিসহ সক‌লের সহ‌যো‌গিতা কামনা কর‌ছি।
ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম