চাঁদপুরে ৭ দফা দাবিতে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের স্মারকলিপি

চাঁদপুর:  সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ কোটা  পুনর্বহাল ও সংরক্ষণ এবং আলাদা নিয়োগ বিজ  ও প্রোমশন বঞ্চিত বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদেরকে অনতিবিলম্বে প্রমোশন দেয়া, সরকারী চাকুরির আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ করাসহ সাত দফা দাবিতে  সাড়াদেশ ব্যাপী কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ চাঁদপুর জেলা কমান্ড কাউন্সিল ।
সোমবার (১০ অক্টোবর) চাঁদপুর জেলা প্রসশাসকের কার্যালয়ের সামনে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ চাঁদপুর জেলা কমান্ড কাউন্সিল  আয়োজিত মানববন্ধন থেকে এসব দাবি জানানো হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন  মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ চাঁদপুর জেলা কমান্ড কাউন্সিল এর আহ্বায়ক আবু নাছের বাচ্ছু পাটওয়ারী,  যুগ্ন আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম সেন্টু, ফরিদগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ এর সাধারণ সম্পাদক ও ৯নং গুবিন্ধপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শেখ মোঃ শাহআলম, কচুয়া উপজেলা সভাপতি মোঃ জাকির হোসেন,  ফরিদগঞ্জ উপজেলার  সিনিয়র সহ-সভাপতি আহসান হাবিব নেভী, চাঁদপুর জেলা  আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শেখ মোঃ মহিউদ্দিন রাসেল, ফরিদগঞ্জ উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মজিবুর রহমান পাটওয়ারী, কচুয়া উপজেলা সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আলাউদ্দিন, হাইমচর উপজেলা যুগ্ন আহ্বায়ক আঃ কাদের গাজী, চাঁদপুর সদর উপজেলা সদস্য একে এম বোরহানীস সুলতান, জেলা সদস্য মোঃ মামুন তপাদার (মুন্না), মতলব উত্তর আহ্বায়ক রিয়াদ হোসেন,  সদস্য সচিব সুজন সরকার, হাইমচর উপজেলা আহ্বায়ক মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল,  কচুয়া উপজেলা সহ-সভাপতি আব্দুল কাইউম, মুক্তিযোদ্ধাদের  মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ব্যাংকার মজিবুর রহমান, মোঃ ছানাউল্লাহ খান,  মফিজুল হক মজুমদার , সরদার আবুল বাসারসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের অন্যান্য  দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে-
সাংবিধানিক স্বীকৃতি ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সুরক্ষা আইন পাস  এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রেণী ও  মর্যাদা নির্ধারণসহ সকল হাসপাতালে হয়রানি বন্ধ ও বিনামূল্যে চিকিৎসার ব্যবস্থা, বিনা সুদে ঋন ও সম্মানীভাতা ৫০.০০০ হাজার টাকা করতে হবে।
বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল এর কেন্দ্রীয় অফিস-সহ সকল জেলা, মহানগর,  উপজেলা ও থানায় অফিস দিতে হবে এবং বঙ্গবন্ধু কতৃক উপহার মুক্তিযোদ্ধা কল্যান ট্রাষ্টের সম্পত্তি  বিক্রয় না করে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরিত করতে হবে। মোট  ৭ দফা দাবি তুলে ধরা হয়।
ফম/এমএমএ/ইব্রাহীম/

ইব্রাহীম খান | ফোকাস মোহনা.কম