চাঁদপুরে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ সমাবেশ

ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদের স্থানে রাম মন্দির নির্মাণের প্রতিবাদে

চাঁদপুর: ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদের স্থানে রাম মন্দির নির্মাণের প্রতিবাদে চাঁদপুরে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) বাদ জুম’আ শহরের চিশতিয়া জামে মসজিদ সম্মুখে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে সভাপতির বক্তব্য রাখেন হেফাজত ইসলাম চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা লিয়াকত হোসেন। সদস্য ফারুক মো. নোয়াইম এর সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন সিনিয়র সহ-সভাপতি মুফতি সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক এস.এম. আনোয়ারুল করিম, প্রচার সম্পাদক ওমর ফারুক, সদস্য মুফতি মো. নুরে আলম, তোফায়েল আহমেদ প্রমূখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিশে^র কোথাও মন্দির, গির্জা ভেঙে মসজিদ নির্মাণ করা হয়েছে এমন নজির নেই। কিন্তু মসজি ভেঙে মন্দির নির্মাণ করার নজির সৃষ্টি হলো। আমরা পেঁয়াজ, ক্যাসিনো, আবরার হত্যাসহ কোন কিছুর কথা বলতে আসেনি। আমরা এসেছি প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মসজিদ গুড়িয়ে মন্দির নির্মাণ রায় দেয়ার প্রতিবাদ জানাতে। আমরা প্রতিবেদ বন্ধু দেশের আচরণ মানবনা। বাংলাদেশের মুসলমান বিধর্মীদের কোন চক্রান্ত মেনে নিবে না। হেফাজতের আন্দোলন কাউকে গদি থেকে নামানো কিংবা বসানোর জন্য নয়। আমাদের এই পর্যন্ত ৬জন রক্ত দিয়েছে। রক্ত লাগলে আমরা আরো দিব। কোরআন ও রাসূল (সা.) কে যারা অবমাননা করবে, তাদের আমরা জিব টেনে ছিড়ে নিব।

বক্তারা ভারত সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন যাতে করে পুনরায় বাবরি মসজিদ ওই স্থানেই নির্মাণ করা হয়।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এসে দোয়া ও মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মুফতি মো. সিরাজুল ইসলাম।

এদিকে হেফাজতের এই কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে শহরে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক অবস্থায় ছিলো। শহরের বিভিন্ন মোড়ে পুলিশ অবস্থান নেয়। সমাবেশ চলাকালিন সময়ে র‌্যাব, পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ এর কর্মকর্তা ও সদস্যরা দায়িত্ব পালন করেন।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম