চাঁদপুর সদরের বাগাদী থেকে শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

চাঁদপুর :  চাঁদপুরে পেটের ব্যাথা সইতে না পেরে কাউছার (১৭) নামের এক শিক্ষার্থী সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করেছে।

বুধবার  (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ৩ টা থেকে ৪টা মধ্যে নিজবাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটে।

নিহত কাউছার চাঁদপুর সদর উপজেলার বাগাদী ইউনিয়নের নিজ গাছতলা গ্রামের সালামত খান বাড়ির জয়নাল খানের ছেলে। সে বাগাদী গনি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র ছিল।

পুলিশ জানায়, কাউছার কয়েকদিন যাবত এ্যাপেন্ডিজেরর ব্যাথায় ভুগছিল। হঠাৎ করে তার পেটের নিচে ব্যাথা উঠায় যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছিল। পরে ব্যাথা সইতে না পেরে ঘরের সকলের অজান্তে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে ঘটনার খবর শুনে চাঁদপুর সদর মডেল থানার এসআই (উপ-পরিদর্শক) সুমন চন্দ্র নাহা লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এসআই (উপ-পরিদর্শক) সুমন চন্দ্র নাহা জানায়, বাড়ির লোকজন জানিয়েছে কাউছারের পেটে ব্যাথা ছিল। কখন তার ঘরে গিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে তা কেউ বলতে পারে না।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আবদুর রশিদ জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম