চাঁদপুরে মেয়েকে ধর্ষণে অভিযুক্ত পিতা কারাগারে

প্রতিকী ছবি।

চাঁদপুর: চাঁদপুরে নিজের ১২ বছর মেয়েকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষণ করার অপরাধে পিতা আজম খান (৪০) কে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার  (৮ সেপ্টেম্বর ) আটক আজম খানকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। বুধবার ধর্ষণের শিকার শিশুর মা আয়শা বেগম বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং-১৭।

গত ৫ সেপ্টেম্বর চাঁদপুর সদর উপজেলার মৈশাদী ইউনিয়নে নিজ বসতঘরে ঘটনাটি ঘটে। বুধবার রাতে চাঁদপুর সদর মডেল থানার এসআই জাকির হোসেন ভূঁইয়া নিজ বসতঘর থেকে আজম খানকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, আজম খান পিতা হওয়া সত্ত্বেও নিজের মেয়ের দিকে কু-নজর ও বিভিন্ন অশ্লীল কথাবার্তা বলতো। মেয়ে উক্ত বিষয়ে মাকে অবহিত করলে তিনি তার স্বামীকে বিষয়টি জিজ্ঞেস করেন। এতে আজম খান মা ও মেয়েকে বিভিন্ন হুমকি ধমকি প্রদর্শনসহ বাড়ী থেকে বের করে দেওয়া ভয়ভীতি দেখায়।

ঘটনার দিন মা-মেয়ে এবং পিতা একসাথে একখাটে ঘরের মধ্যে ঘুমিয়ে পড়ে। পরবর্তীতে পিতা আজম মেয়েকে ডাক দিয়ে পাশের রুমে নিয়ে যায় এবং ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। পরের দিন সকালে মেয়ে উক্ত বিষয়ে বিস্তারিত মাকে অবহিত করে। মা তার স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি কোন কিছু না বলেয়া ঘর থেকে বের হয়ে যায়।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আবদুর রশিদ জানান, অভিযুক্ত আজমকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম