চাঁদপুরে মানব পাচার মামলার কয়েদীর মৃত্যু

চাঁদপুর : চাঁদপুর জেলা কারাগারের মোস্তফা মিস্ত্রি (৪০) নামে কয়েদী পেটের পীড়া জনিত রোগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সরকারি জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে তার মরদেহ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। মৃত কয়েদি জেলার মতলব দক্ষিণ উপজেলার দক্ষিণ ঘোড়াদারি গ্রামের মৃত রহিম আলীর ছেলে।

এর আগে শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) দিনগত রাত ১২ টার দিকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, মৃত মোস্তফা মিস্ত্রি মানব পাচার মামলায় আসামি। তিনি একমাস ১৯ দিন কারাবরণ করেন। শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে পেটের পীড়া জনিত (পাতলা পায়খানা) রোগে অসুস্থ হয়ে পড়লে কারাগারের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা চিকিৎসার জন্য তাকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। অসুস্থ অবস্থায় তাকে রাত ১১ টা ৪০ মিনিটের সময় হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাত ১২টার দিকে হাসপাতালরর দ্বিতীয় তলার পুরুষ ওয়ার্ডে চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

চাঁদপুর জেলা কারাগারের মেডিকেল সহকারি রাসেল আহমেদ জানান, মোস্তফা মিস্ত্রি মানবপাচার মামলার আসামী ছিলেন। তিনি এক মাস ১৯ দিন কারাবরণ অবস্থায় শুক্রবার রাতে পাতলা পায়খানা জনিত রোগে অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। পূর্ব থেকেই তিনি লিভারের সমস্যা, আলচার ও শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ভোগছিলেন।

চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ জানান, পুলিশ হাসপাতাল থেকে মরদেহ উদ্ধার ও সুরতাল তৈরি করে। ময়না তদন্ত ও আইনী প্রক্রিয়া শেষে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে পরিবারের নিকট মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম