চাঁদপুরে ভুয়া ডিবি পরিচয়ে ৫ যুবক আটক

চাঁদপুর : চাঁদপুরে সড়কে সাধারণ মানুষকে অবরুদ্ধ করে চাঁদাবাজি করার সময় ডিবি পুলিশ পরিচয় দেয়া ৫ প্রতারক যুবককে আটক করা হয়েছে।

বুধবার (১৫ মে) দিনগত রাত ১০টার দিকে সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের মধুরোড রেল স্টেশনের পাশে সিএনজি চালিত অটোরিকশা যোগে তল্লাশির নামে চাঁদাবাজি কালে তাদেরকে হাতেনাতে আটক করে রাখে স্থানীয়রা।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সকালে এসব তথ্য জানান চাঁদপুর সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দিন। তিনি বলেন, স্থানীয়রা সংবাদ দিলে অটোরিকশাসহ ৫ যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। এর আগে লোকজন তাদেরকে ঘটনাস্থলে আটকে রাখে।

আটক যুবকরা হলেন-জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম গোবিন্দিয়ার ইলিয়াস কাজীর ছেলে নাজির হোসেন (৩৬), শাহরাস্তির উয়ারুকের ফকির বাড়ীর তাজুল ইসলামের ছেলে মহিবুল ইসলাম (৩০), মতলব দক্ষিণের গোবিন্দিয়া পিংড়ার মিলন খানের ছেলে দিদার খান (৪২), একই উপজেলার ভাঙ্গারপাড় এলাকার সোহরাব উদ্দিনের ছেলে শরিফুল্লা প্রধানিয়া (৪০) এবং সদরের মান্দারি এলাকার মৃত ওসমান গনির ছেলে খোকন সর্দার (৪০)।

স্থানীয়রা জানান, এই পাঁচ জন এর আগেও অটোরিকশা নিয়ে এসে গোয়েন্দা পুলিশের নাম ব্যবহার করে বোকা বানিয়ে তল্লাশীর নামে হয়রানি করে প্রতারণার মাধ্যমে চাঁদাবাজি করেছে। আজকেও কয়েক জায়গায় এরা লোকজনকে হয়রানি করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়। এরপর মধুরোড রেল ষ্টেশন এলাকায় এসে তরুন যুবকদের তল্লাশীকালে অনেকের সন্দেহ হয় এবং তাদেরকে অবরুদ্ধ করা হয়।

মধুরোড স্টেশন এলাকার ব্যবসায়ী অলী আহমদ বেপারী বলেন, রেলস্টেশনের ক্যান্টিনের পাশে পাকা রাস্তার ওপর চাঁদপুর-থ-১১৪২২৫ নাম্বার প্লেটের সিএনজি চালিতে অটোরিকশা নিয়ে ওৎ পেতে ছিলো ৫ যুবক। তাদের গায়ে প্রেস এণ্ড এন্টি-করাপশন লেখা কটি গায়ে দিয়ে এখানে এসে অবস্থান নেয়। তাদের আচার আচরণে সন্দেহ দেখে সবাই অবরুদ্ধ করে পুলিশকে খবর দেয়।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রাজ্জাক মীর বলেন, আটক ৫ জনের প্রেস এণ্ড এন্টি-করাপশন লেখা কটি গায়ে দিয়ে সাধারণ লোকজনকে অবরুদ্ধ করছিলো। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছে তারা ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়েছে। পরে লোকজন তাদেরকে আটক করে আমাদেরকে জানায়। বর্তমানে অটোরিকশাসহ তারা থানা হেফাজতে আছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে।

ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম