চাঁদপুরে প্রায় ১৬ লক্ষ টাকার ৮৮টি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল চুরি

চাঁদপুর : চাঁদপুর শহরের রেলওয়ে হর্কাস মার্কেটের ১০৯ ও ১২০ নং মোবাইল মেলা দোকান থেকে বিভিন্ন কোম্পানীর ৮৮ টি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল সেট চুরি করেছে চোর চক্র। চুরি হওয়া ৮৮টি মোবাইল সেটের মূল্য মোট ১৫ লক্ষ ৭২ হাজার ৫শ’ ৫৭ টাকা। তবে চুরি কাজে ব্যবহ্নত কিছু মালামাল জব্দ করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৬ আগষ্ট) দুপুর ১২ টায় ঘটনার খবর শুনে পরিদর্শনে আসেন চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ আসিফ মহীউদ্দিন, চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আবদুর রশিদ, এসআই মোঃ শাহরিন ও এসআই রাজন।

এ সময় চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বেপারী, হর্কাস মার্কেট মালিক সমিতির সভাপতি আজিজ খান দুদু, হর্কাস মার্কেট মালিক সমিতির সভাপতি আনোয়ার হোসেন আনুসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

চুরি হওয়া ৮৮ টি মোবাইল সেটের মধ্যে রয়েছেঃ এমআই কোম্পানির ২৫ পিস মোবাইল সেট ৪ লক্ষ ২৩ হাজার ৭৬ টাকা, টেকনো ৭ পিস ৮৪ হাজার ৪ শ ৩০ টাকা, অপো ১৬ পিস ৩ লক্ষ ৪৭ হাজার, রিয়েলমি ১১ পিস ১ লক্ষ ৯৯ হাজার, ইনফিনিক্স ৫ পিস ৭৭ হাজার ৩শ, ভিভো ১৭ পিস ৩ লক্ষ ১৭ হাজার ৬শ’ ৫৭ টাকা, নকিয়া ১১ পিস ৮ হাজার ১শ টাকা, স্যামসাং ৬ পিস ১ লক্ষ ১৫ হাজার ৯শ ৯৪ টাকা।

জানা যায়, সোমবার রাতে দোকান বন্ধ হওয়ার পর থেকে সকালে দোকান খোলার আগ পর্যন্ত যে কোন সময় চোরচক্র মোবাইল মেলা দোকানের চালের টিন খুলে ৮৮ টি মোবাইল সেট নিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় দোকানে থাকা সিসি ক্যামেরার তার কেটে দেয় চোর চক্র। রেলওয়ের হর্কাস মার্কেটের চুরি হওয়া মোবাইল মেলার পাশের দোকান শান্তা ফোম এন্ড মেট্রেস ষ্টোরে কয়েকদিন পূর্বে কাঠমিস্ত্রিরা কাজ করেন। ধারনা করা হচ্ছে এ চুরির সাথে কাঠমিস্ত্রি ও মার্কেটের দাড়োয়ান জড়িত রয়েছেন। চুরি কাজে ব্যবহ্নত কিছু মালামাল জব্দ করেছে পুলিশ।

নাম প্রকাশে অনিশ্চুক কয়েকজন জানান, চাঁদপুর টাওয়ারের নিচতলা ও দোতালা, হর্কাস মার্কেটে পুরাতন মোবাইল ক্রয় বিক্রয় করা হয়। তাদের সাথে বিভিন্ন স্থানের চোর চক্রের সখ্যতা রয়েছে। চোরাই মোবাইলগুলো অসাধু ব্যবসায়ীরা ঢাকায় গিয়ে আইমি নাম্বার কেটে নতুন আইমি নাম্বার বসিয়ে মোবাইল সেটগুলো বিক্রয় করে থাকেন। তবে মোবাইল মেলা দোকানের চুরির ঘটনাটি পূর্ব পরিকল্পিত।

মোবাইল মেলা দোকানের মালিক মোরশেদ আলম জানান, চুরি হওয়া সবগুলো মোবাইল অ্যান্ড্রয়েড ফোন। ১০১৩ সালেও আমার দোকানে চুরি হয়। আমি ক্ষতিগ্রস্থ। আমি প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছি।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আবদুর রশিদ জানান, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। চোর চক্রটি আটকের চেষ্টা চলছে।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম