চাঁদপুরে উদ্ধারকৃত বিপুল পরিমান মাদক আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস

চাঁদপুর :  চাঁদপুর জেলা পুলিশের বিভিন্ন অভিযানে উদ্ধারকৃত অবৈধ মাদকদ্রব্য আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চাঁদপুর আদালত প্রাঙ্গনে দীর্ঘদিন মামলার আলামত হিসেবে জব্দ থাকা বিপুল পরিমাণ এসব মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।

ধ্বংসকরণ কার্যক্রমে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুরের চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামছুল আলম, বিশেষ অতিথি হিসেবে চাঁদপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মিলন মাহমুদ।

এছাড়াও চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) সুদীপ্ত রায়, অন্যান্য বিচারক এবং পুশিল কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ জানায়, ধ্বংসকৃত মাদকের মধ্যে ছিল গাঁজা ২শ’ ৬৫ কেজি ৫২৫ গ্রাম, ইয়াবা ট্যাবলেট ১৩ হাজার ৩শ’ ২৩ পিস, ফেন্সিডিল ২শ’ ২৯ বোতল, মদ ৫ বোতল এবং হুইস্কি ১০ বোতল।

পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আজকে যেসব মাদকদ্রব্য আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে এটি আমাদের নিয়মিত কাজের অংশ। প্রতিমাসেই উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। এখানে গত দুই মাসের উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ছিল।

সম্প্রতি সময়ে চাঁদপুর জেলা পুলিশ, নৌ-পুলিশ ও জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অভিযানে বেশীরভাগ অভিযানে গাঁজা উদ্ধার হয়েছে। দুই বছর আগেও চাঁদপুর জেলায় ইয়াবা ট্যাবলেটের চালান বেশী আটক হয়েছে। কিন্তু কুমিল্লাসহ ভারত সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে মাদকব্যবসায়ীরা এখন চাঁদপুর জেলাকে নিরাপদ রূট হিসেবে ব্যবহার করছে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর থাকায় মাদক পাচার করতে গিয়ে তারা এখন লঞ্চঘাট ও বাস স্ট্যান্ডে বেশীরভাগ সময় আটক হচ্ছে। আটকদের মধ্যে এখন নারী মাদকব্যবসায়ীর সংখ্যাও বাড়ছে।

ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম