গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ প্রকল্প-কর্মীদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

স্থানীয় সরকার উপপরিচালক মোহাম্মদ শওকত ওসমানের বিদায় সংবর্ধনা

চাঁদপুর:  শনিবার (৩০ নভেম্বর) সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে চাঁদপুরের স্থানীয় সরকার উপপরিচালক(ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শওকত ওসমান, উপসচিব মহোদয়ের বিদায় সংবর্ধনা উপলক্ষ্যে এক বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবংজাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) সহায়তায় স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক পরিচালিত বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্প -এরআওতায় চাঁদপুরে কর্মরত জেলা ও উপজেলা কর্মকর্তাগণ এবং ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সহকারীবৃন্দ যৌথভাবে এ অনুষ্ঠান আয়োজনের মাধ্যমেতাদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানের মধ্যমনি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদায়ী স্থানীয় সরকার উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শওকত ওসমান। এতে সভাপতিত্ব করেন জাতিসংঘউন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধি ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর (ডিএফ) নিকোলাস বিশ্বাস। অনুষ্ঠানে প্রকল্পের সহযোগী সংস্থা তথা ব্লাস্ট’-এরজেলা সমন্বয়কারী মোঃ আমিনুর রহমান, উপজেলা সমন্বয়কারীবৃন্দ মোঃ সগীর আহম্মেদ ও মোঃ সিদ্দিক আলী সহ প্রকল্পাধীন ৪৪ ইউনিয়নের সকল গ্রামআদালত সহকারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

বিদায়ী স্থানীয় সরকার উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শওকত ওসমান বলেন, সরকারের নিয়ম অনুযায়ী আমাদের সবাইকে বদলী হতে হয়। এটা আমাদেরচাকরী জীবনের একটি নিয়মিত অংশ। চাঁদপুরে আমি দুই বছর দুই মাস কর্মরত ছিলাম। এ সময়ে আমি আপনাদের সাথে কাজ করতে পেরে খুবই আনন্দিত।মাঠ পর্যায়ে প্রকল্পের বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে পেরে আমি অনেক কিছু শিখতেও পেরেছি। আসলে দেশের উন্নয়নের জন্য আমাদের একযোগেকাজ করতে হবে। এখন দেশের প্রশাসন জনবান্ধব। জনগণের কল্যাণে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন সর্বদা কাজ করে যাচ্ছে। দেশ ও দশের সেবা করতে পারলেসত্যিই আনন্দ পাওয়া যায়।

জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি’র (ইউএনডিপি) জেলা প্রতিনিধি (ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর) নিকোলাস বিশ্বাস বিদায়ী উপসচিব মোহাম্মদ শওকত ওসমান মহোদয়েরউদ্দেশ্যে বলেন, আপনার সঙ্গে কাজ করতে পেরে আমরাও কৃতজ্ঞ। যখনই কোন সহযোগীতার জন্য আমরা আপনার কাছে গিয়েছি তখনই সহযোগিতাপেয়েছি। আপনার মধ্যে আমরা কোন বিরক্তির ভাব লক্ষ্য করিনি। গ্রাম আদালত সক্রিয়করণে আপনার নেতৃত্ব ও পরামর্শ আমাদের জন্য অনেক সহায়ক ছিল।কাজের প্রতি আপনার একাগ্রতা ও ধৈর্য্য আমাদের দারুনভাবে উৎসাহিত করেছে। এখানে উপস্থিত গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ প্রকল্পের সকল কর্মকর্তা ও গ্রামআদালত সহকারীদের পক্ষ থেকে আপনার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। পাশাপাশি নতুন কর্মস্থলে আপনার সুস্বাস্থ্য ও উত্তরোত্তর সাফল্য কামনাকরি।

চাঁদপুরে ২০১৭ সাল হতে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ প্রকল্পটি কাজ করছে। জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সার্বিক নির্দেশনায় স্থানীয় সরকার উপপরিচালক প্রকল্পটিপরিচালনা করেন। প্রকল্পটি মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নে তাকে সহযোগিতা করেন জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি’র (ইউএনডিপি) একজন জেলা প্রতিনিধি যিনি ডিস্ট্রিক্টফ্যাসিলিটেটর হিসেবে কাজ করেন। এছাড়াও মাঠ পর্যায়ে প্রকল্পটি সরাসরি বাস্তবায়নে সরকারের পাশাপাশি কাজ করছে সহযোগী সংস্থা ব্লাস্ট। জেলা,উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে ব্লাস্টের কর্মীবৃন্দ রয়েছে।

২০১৭ হতে এ পর্যন্ত চাঁদপুরে মোট ৪ জন স্থানীয় সরকার উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে কাজ করেছেন। এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী সময় ধরে কাজকরেছেন মোহাম্মদ শওকত ওসমান, উপসচিব। তিনি ২৫তম ব্যাচের (বিসিএস) একজন কর্মকর্তা। ২০১৭ সালের ১৫ অক্টোবর তিনি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকহিসেবে চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যোগদান করেন। এরপর ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে তিনি স্থানীয় সরকার জেলা শাখায় উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত)হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত হন। এখানে কাজ করার সময়ই তিনি সরকারের উপসচিব পদে উন্নীত হন। সম্প্রতি মন্ত্রণালয় থেকে তার বদলীর আদেশ আসে এবং সেমোতাবেক তাকে কুমিল্লায় পূর্ণকালীন স্থানীয় সরকার উপপরিচালক হিসেবে বদলী করা হয়। শীঘ্রই মোহাম্মদ শওকত ওসমান তার নতুন কর্মস্থলে যোগদানকরবেন।

অনুষ্ঠানে বিদায়ী স্থানীয় সরকার উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শওকত ওসমান, উপসচিব মহোদয়কে বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্প’ চাঁদপুর -এর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃজ্ঞতা প্রকাশস্বরূপ ক্রেষ্ট ও উপহার প্রদান করা হয়।

ফম/এমএমএ/

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম