কুমিল্লায় সেনানিবাসে সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালিত

কুমিল্লা সেনানিবাসে মহান সশস্ত্র দিবস উদযাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে ১০ জন মুক্তিযোদ্ধার পরিবারকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) বিকেলে দিবসটি পালন করা হয়।

অনুষ্ঠানে আগত মুক্তিযোদ্বাসহ সকল গন্যমান্য অতিথিদেরকে অভ্যর্থনা জানান কুমিল্লার ৩৩ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার জিওসি মেজর জেনারেল আহম্মদ তাবরেজ শামস চৌধুরী, এনডিসি, পিএসসি ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি।

এ সময় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন, কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা হাজী আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহার, ফেনি জেলার সাংসদ নিজাম হাজারি, চাঁদপুর-৪ আসনের সাংসদ মুহম্মদ শফিকুর রহমান, সাবেক সাংসদ ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভুঁইয়া, কুমিল্লার সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ সেলিনা ইসলাম (সিআইপি), রৌশন আরা মান্নান, আঞ্জুম সুলতানা সীমা, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল প্রমূখ।

কুমিল্লার ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল আহম্মদ তাবরেজ শামস চৌধুরী, এনডিসি, পিএসসি অনুষ্ঠানের প্রথমেই স্মরণ করেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে এবং শ্রদ্ধা জানান অগণিত শহীদের ও সাহসী বীর মুক্তিযোদ্বাদের যাদের আত্মত্যাগে অর্জিত হয়েছে কাঙ্খিত স্বাধীনতা। তিনি মুক্তিযুদ্ধের সময় কুমিল্লা অঞ্চলের জনগণের অসীম সাহসিকতা আত্মত্যাগ সহযোগিতা এবং বীরত্বপূর্ণ অবদানের ভূয়সী প্রশংসা করে অনুষ্ঠানে উপস্থিত কুমিল্লা অঞ্চলের বীর মুক্তিযোদ্বাসহ সকল বীর শহীদের প্রতি জানান বিনম্র শ্রদ্ধা।

তাঁর ভাষনে তিনি দেশ উন্নয়নে সশস্ত্র বাহিনীর নিরলস প্রচেষ্ঠার কথা ও দেশের সুনাম বৃদ্ধিতে সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিটি সদস্যের কঠোর আত্মত্যাগের চিত্র তুলে ধরেন। পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সশস্ত্র বাহিনী জাতীয় পর্যায়ে যে কোন দুর্যোগ মোকাবেলা, অবকাঠামো নিমার্ণ, আর্তমানবতার সেবা, পাবর্ত্য চট্টগ্রামে সন্ত্রাস দমন, জঙ্গী দমন, বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা
এবং বিভিন্ন দেশগঠনমূলক কর্মকান্ডসহ জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে দেশর ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে বলে তিনি সকলকে অবহিত করেন।

তিনি আরো বলেন যে, আধুনিকায়ন, সম্প্রসারণ যুগোপযোগি করার লক্ষ্যে আধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ব সামরিক সরঞ্জাম দিয়ে সশস্ত্র বাহিনীকে আরোও শক্তিশালী করতে বর্তমান সরকার সবসময় আন্তরিক রয়েছেন।

পরে প্রধান অতিথি সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, জিওসি এবং উপস্থিত সাংসদরা মিলে কেক কাটেন।

ফম/এমএমএ/

নিউজ ডেস্ক | ফোকাস মোহনা.কম