কুমিল্লায় ট্রেনে কাটা পড়ে চাঁদপুরের স্কুল ছাত্রের মৃত্যু

ছবি: সংগ্রহীত।

চাঁদপুর: লাকসাম ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে মেহেদী হাসানের মৃত্যুর দু’দিন পর এবার কানে হেডফোন লাগিয়ে রেললাইনে বসে মোবাইলে গেম খেলার সময় কুমিল্লায় ট্রেনে কাটা পড়ে চাঁদপুর সদরের প্রকাশ চন্দ্র শীল (১৪) নামে স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুমিল্লা রেল স্টেশনের পাশে দইয়ারা এলাকায় রেল লাইনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রকাশ চন্দ্র শীল চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ৮নম্বর ওয়ার্ড টাহরখিল শীল বাড়ির প্রবাসী নিমাই চন্দ্র শীলের ছেলে। সে মহামায়া হানাফিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

স্থানীয়রা জানান, প্রকাশ চন্দ্র গত দু’সপ্তাহ আগে তার নানার বাড়ি কুমিল্লার দইয়ারা গ্রামে বেড়াতে গিয়েছিল। তার মা গিয়েছে গত দু’দিন আগে। তারা বেড়ানো শেষ করে কয়েকদিন পর নিজ বাড়ি চাঁদপুরে আসার কথা থাকলেও বৃহস্পতিবার বিকেলে নানার বাড়ি থেকে ঘুরতে বের হয়ে রেললাইনের উপরে বসে কানে হেডফোন লাগিয়ে মোবাইলে গেমস খেলছিল। ওইসময় লাকসাম থেকে ছেড়ে আসা একটি ট্রেনের নিচে পড়ে তার মৃত্যু হয়।

বাড়ির লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রকাশের মরদেহ শুক্রবার (১৫ জুলাই) বিকেলে কুমিল্লা থেকে বাড়িতে আনা হবে এবং তার দাহ রাতেই সম্পন্ন হবে।

এদিকে, গত দু’দিন আগে কুমিল্লার লাকসামে ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। নিহত কিশোরের নাম মেহেদী হাসান (১৫)। তিনি ফেনীর দেবীপুর এলাকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে।

১১ জুলাই দুপুর সাড়ে ১২টায় লাকসাম রেলওয়ে জংশনের অদূরে চাঁদপুর রেলগেট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। রেলওয়ে (জিআরপি) পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করে।
ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম