কচুয়ায় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ভাতার কার্ড করে দেয়ার নামে টাকা আদায়ের অভিযোগ!

কচুয়া  (চাঁদপুর): কচুয়ার এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে বয়স্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড করে দেয়ার নামে টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার ৫নং পশ্চিম সহদেবপুর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কাজী মনির হোসেনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, কচুয়া উপজেলার ৫নং পশ্চিম সহদেবপুর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডে বয়স্ক,প্রতিবন্ধী ও বিধবা ভাতার কার্ডের জন্য হাতিয়ে নিয়েছে মোটা অংকের টাকা।

কাদিরখিল গ্রামের ভূক্তভোগী সালেহা বেগম জানান, ইউপি সদস্য কাজী মো. মনির হোসেন বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেবে ২ হাজার টাকা নিয়েছে। কার্ড করার পর একবার টাকা উত্তোলণ করতে পারলেও এরপরে আর টাকা উত্তোলণ করতে পারেনি।

মনোয়ারা বেগম জানান, আমার জীবিত থাকা অবস্থায় বয়স্ক ভাতা পেত । মা মারা যাওয়ার পর মনির মেম্বার আমার কাছ থেকে টাকা নিয়ে আমার নামে ওই কার্ড করেছে।

কয়েকজন ভূক্তভোগী নারীরা জানান, বয়স্ক, বিধবা ভাতার কার্ড করে দেবে বলে মনির হোসেন মেম্বার কারো কাছ থেকে ১ হাজার কারো কাছ থেকে ২ হাজার কিংবা ৩ হাজার টাকাও নিয়েছে। টাকা নিয়েছে তবে ভাতার কার্ড না করে দিয়ে টাকা আত্মসাৎ করেছে।
এদিকে কাদিরখিল গ্রামে রাস্তা নির্মাণ করার জন্য ৪০ দিনের কর্মসূচীতে ৪ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। সে রাস্তা বুলডোজার দিয়ে ১ দিনে নির্মাণ করার অভিযোগও রয়েছে তার বিরদ্ধে।

ফম/এমএমএ/

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম