ঈদে দর্শনার্থীদের মিলন মেলা তিন নদীর মোহনা

চাঁদপুর: পবিত্র ঈদুল আযহার দ্বিতীয় দিনে চাঁদপুরের প্রধান পর্যটন কেন্দ্র বড় স্টেশন মোলহেডে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড় ছিল। জেলা সদরে ভ্রমন এবং সময় কাটানোর ভাল জায়গা না থাকায় অধিকাংশ মানুষ এখানে এসে জড়ো হয়। তিন নদীর মোহনা কিছুটা হলেও ভ্রমন পিপাসুদের সাময়িক তৃপ্তি দেয়।

সোমবার (১১ জুলাই) সকাল থেকেই জেলার বাহির এবং জেলার আভ্যন্তরে উপজেলাগুলো থেকে শিশু থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সী লোকজন মোলহেডে আসেন। বিশেষ করে মোলহেডে থাকা রাইডারগুলোতে উঠে শিশুরা আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠে। ঘুরতে আসা অনেকে নৌকায় ভ্রমন করেছে। কেউবা মোবাইলে সেলফি তুলছেন।

মূলত প্রাকৃতিক পরিবেশে পদ্মা-মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীর মিলন এর অপরূপ সৌন্দর্য উপভোগ করার জন্য এখানে আসেন।

মোলহেডে বেশ কিছু সময় অপেক্ষা করে দেখাগেছে, অন্যান্য উৎসবের তুলনায় এবারের ঈদুল আযহা উপলক্ষে আসা দর্শনার্থীদের নিরাপত্তা বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিশ সদস্যরা। পুলিশ একই স্থানে বসে না থেকে টহল এবং বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ রাখে। বিশেষ করে উশৃঙ্খল যুবকদের কোন অপ্রীতিকর ঘটনা যেন না ঘটাতে পারে সে ব্যাপারে কঠোর অবস্থান নেয়।

অপরিদকে, মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীতে তরুন ও যুবকদের সাউন্ড সিস্টেম নিয়ে উশৃঙ্খল অবস্থা নিয়ন্তণে কাজ করেছে নৌ পুলিশ। তারা মোহনাসহ আশপাশের এলাকায় টহলে ছিলেন।

এছাড়া জেলার বাহির থেকে আসা লোকজন অনেকেই ট্রলারে করে মেঘনার পশ্চিম পাড়ে চরে ঘুরতে যায়। আবার অনেকেই নৌকা ভ্রমন করে।
তবে, সরকারের যে নির্দেশনা স্বাস্থবিধি মানা। এই বিষয়ে ভ্রমনে আসা দর্শনার্থীদের মধ্যে নূন্যতম সচেতনতা দেখা যায়নি।
ফম/এমএমএ/

শাহরিয়া পলাশ | ফোকাস মোহনা.কম