ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেএসএইচআর এর মতলব উত্তর শাখার ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম মহিউদ্দিন

চাঁদপুর মতলব উত্তর উপজেলা দুর্গাপুর ইউনিয়নের লবাইরকান্দি গ্রামের কৃতি সন্তান আহমদ উল্লাহ মাস্টার এর সুযোগ্য সন্তান, বাংলাদেশ জার্নালিষ্ট সোসাইটি ফর হিউম্যান রাইটস্ এর মতলব উত্তর শাখার ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম মহিউদ্দিন। পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে মতলব উত্তর উপজেলা সহ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে আমি দেশবাসীসহ মতলব উত্তর উপজেলার সকল জনসাধারণকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক। পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে সাংবাদিকদের দেওয়া এক বিবৃতিতে জার্নালিষ্ট সোসাইটি ফর হিউম্যান রাইটস্ এর মতলব উত্তর শাখার ভাইস প্রেসিডেন্ট, গোলাম মহিউদ্দিন বলেন মতলব উত্তর উপজেলা  সহ সকল দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানান। গোলাম মহিউদ্দিন ঈদ-উল-ফিতর মুসলমানদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব। মাসব্যাপী সিয়াম সাধনা ও সংযম পালনের পর খুশি আর আনন্দের বারতা নিয়ে আমাদের মাঝে সমাগত হয় পবিত্র ঈদুল ফিতর। দিনটি বড়ই আনন্দের এবং খুশির।দুর্গাপুর ইউনিয়নের জাতীয় ছাত্রসমাজের সাবেক সাধারন সম্পাদক গোলাম মহিউদ্দিন আরো বলেন, এ আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে সবার মাঝে, গ্রামগঞ্জে, সারা বাংলায়, সারাবিশ্বে। শহরবাসী মানুষ শিকড়ের টানে ফিরে যান আপনজনের কাছে, মিলিত হয় আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে। এ দিন সব শ্রেণি-পেশার মানুষ এক কাতারে শামিল হন এবং ঈদের আনন্দকে ভাগাভাগি করে নেন।
গোলাম মহিউদ্দিন, ঈদ সবার মধ্যে গড়ে তোলে সৌহার্দ্য সম্প্রীতি ও ঐক্যের বন্ধন। ঈদ-উল-ফিতরের শিক্ষা সবার মাঝে ছড়িয়ে পড়ুক, গড়ে উঠুক সমৃদ্ধ বাংলাদেশ- এ প্রত্যাশা করি।তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। আবহমানকাল থেকে এখানে সব ধর্মের মানুষ মিলেমিশে বসবাস করছে। এই সম্প্রীতি আমাদের জাতীয় ঐতিহ্য। ‘ইসলাম শান্তি ও কল্যাণের ধর্ম। এখানে হিংসা-বিদ্বেষ, হানাহানির কোনও স্থান নেই। মানবিক মূল্যবোধ, পারস্পরিক সহাবস্থান, পরমতসহিষ্ণুতা ও সাম্যসহ বিশ্বজনীন কল্যাণকে ইসলাম ধারণ করে। গোলাম মহিউদ্দিন আরো বলেন, ইসলামের এই সুমহান বার্তা ও আদর্শ সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। ইসলামের মর্মার্থ ও অন্তর্নিহিত তাৎপর্য মানবতার মুক্তির দিশারি হিসেবে দিকে দিকে ছড়িয়ে পড়ুক, বিশ্ব ভরে উঠুক শান্তি আর সৌহার্দ্যে- মহামারী করোনাভাইরাস এর কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর পালন করবেন এ প্রত্যাশা করি।করোনা ভাইরাসের কারনে আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদুল ফিতর উদযাপন করবো।সকলে মিলে সুন্দর এবং সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়বো এই প্রত্যাশা করি ঈদ মোবারক। -বিজ্ঞাপন।

বিজ্ঞাপন | ফোকাস মোহনা.কম