আমাদের মধ্যে প্রতিযোগিতা থাকবে, প্রতিহিংসা নয়: নাছির উদ্দিন আহমেদ

চাঁদপুর: চাঁদপুর সদর উপজেলার ৭নং তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) সকাল ১০ টায় তেতুলতলা বালুরমাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে সকল কাউন্সিল এর মতামতের ভিত্তিতে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হন সাবেক সভাপতি ইমাম হাসান রাসেল গাজী। পরে সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষনা করে জানানো হবে।

সম্মেলনের প্রথম পর্বে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক ও ইউপি চেয়ারম্যান ইমাম হাসান রাসেল গাজীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল।

ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা তাজুল ইসলামের সঞ্চালনায় উদ্বোধকের বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান। প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক আলী এরশ্বাদ মিয়াজী।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড। জিল্লুর রহমান জুয়েল, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আজিজ খান বাদল, সাংগঠনিক সম্পাদক আইয়ুব আলী বেপারী, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আবিদা সুলতানা, সদর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আব্দুল মালেক দেওয়ান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুস সামাদ টুনু, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আঃ লতিফ বিশ্বাস।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, এই সম্মেলনের মাধ্যমে আমরা দলকে শক্তিশালী করব। দলকে শক্তিশালী করার জন্যই মূলত সম্মেলন। আমাদের মধ্যে প্রতিযোগীতা থাকবে, প্রতিহিংসা নয়। দলের প্রতি আমাদের আনুগত থাকতে হবে।
তিনি বলেন, আমাদের অনেক দূর এগিয়ে যেতে হবে। তাই দলকে ও হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। যে যত প্রভাবশালী হউক না কেন, মাদক, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের সাথে জড়িত কাউকে আপনারা দলে আনবেন না। যারা ত্যাগী ও মানুষ দেখলে এগিয়ে আসে, তাদের কে দলে রাখবেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল সম্মেলনের সফলতা কামনা করে বলেন, এই সম্মেলনের মাধ্যমে তৃণমূল থেকে জাতির জনকের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হবে। আওয়ামী লীগের প্রতিটি কর্মীকে সরকারের সকল উন্নয়ন কাজের কথা সাধারণ মানুষের কাছে গিয়ে পৌঁছাতে হবে। জননেত্রী শেখ হাসিনা নতুন নির্দেশনা দিয়েছেন। নতুন যোগ্যকে নেতৃত্ব দিতে। যদি কোন কমিটিতে ব্যক্তয় হয়। আপনারা আমাদের জানালে আমরা তা পরিবর্তন করে দেব। আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, মহিলা আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ সকল নেতৃবৃন্দ ঐক্যবদ্ধ হয়ে তরপুরচন্ডী ইউনিয়নকে আওয়ামীলীগের ঘাঁটি হিসেবে তৈরী করবে। এই প্রত্যাশা করি।

অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এ সময় জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন অতিথি ও নেতা-কর্মীবৃন্দ।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম