আদা-রসুন থাকলেও পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ

চাঁদপুর: চাঁদপুর সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামের দোকানগুলোতে পেঁয়াজ বিক্রি করা বন্ধ করে দিয়েছে ব্যবসায়ীরা। ক্রেতাদের সাথে বাক বিতন্ডা আর লোকসান দিয়ে পেঁয়াজ বিক্রি করতে নারাজ প্রান্তিক অঞ্চলের ক্ষুদ্র এসব ব্যবসায়ী। তাদের দোকানে আদা ও রসুনসহ অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী থাকলেও পেঁয়াজ রয়েছে অনপুস্থিত।

গত বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) চাঁদপুর সদর উপজেলার চান্দ্রা ইউনিয়নের চৌরাস্তা বাজারে অনেকগুলো দোকানঘুরে দেখাগেলো মাত্র একটি দোকানে পেঁয়াজ আছে। পেঁয়াজগুলো দেশীয় জাতের পেয়াজ। অন্য দোকানগুলোতে পেঁয়াজের চিহ্নও পাওয়া যায়নি।

একাধিক ব্যবসায়ীরা সাথে আলাপ করে জানাগেছে, তারা গত প্রায় একমাস পেঁয়াজ ক্রয় ও বিক্রয় কোনটাই করেন না। কারণ খচুরা ক্রেতাদের সাথে দাম নিয়ে প্রতিনিয়ত তর্ক করতে হয়। চাঁদপুরের পাইকারী আড়ৎ থেকে প্রতিকেজি ১৯০টাকা করে ক্রয় করে ২শ’ টাকা বিক্রি করাও মুশকিল। তাই বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছেন।

একই এলাকার আখনের হাট রোডের বকশীলাপুল বাজারে লিমন ভ্যারাইটিজ স্টোরে গিয়ে দেখাগেলো পাশাপাশি আদা ও রশুন। কিন্তু পেঁয়াজ নেই। এই দোকানের মালিক মোক্তার হোসেন মনা। তারই একই কথা ক্রেতাদের সাথে বিরোধ হয়। পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ।

এই বাজারের কয়েকজন ক্রেতা সাংবাদিকদেরকে দেখে বললেন, আপনারা ছবি তুলে কি লাভ হবে, দামত কমে না। দিন দিন পেঁয়াজের দাম আরো বাড়াতাছে।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম