আদালতের রায়ের পরে সমাধানের দায়িত্ব নিলেন চেয়ারম্যান

চাঁদপুর: চাঁদপুর সদর উপজেলার মৈশাদী ইউনিয়নে  অসহায়দের জায়গা দিয়ে জোরপূর্বক  রাস্তা নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে ।
জানাযায়, মৈশাদী ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ হামানকর্দী সর্দার বাড়ির কাদির সর্দার, আবুল খায়ের সর্দার, ইয়াসিন সর্দার ও নূরুল ইসলাম সর্দারদের সাথে দীর্ঘ দিন ধরে একই বাড়ির গোফরান সর্দার, আব্দুর রব সর্দার,ইউছুফ সর্দার,মোস্তফা সর্দার, জামাল সর্দারদের জমি নিয়ে মামলা চলে আসছিলো।
সেই মামলার রায় কাদির সর্দার, আবুল খায়ের সর্দার, ইয়াসিন সর্দার ও নূরুল ইসলাম সর্দার গংরা পায়। রায় পাওয়ার পর গত ১ জানুয়ারি  তারা তাদের নিজেদের জায়গায় বেড়া দেয়।কিন্তু পরদিনই গোফরান সর্দার, আব্দুর রব সর্দার, ইউছুফ সর্দার,মোস্তফা সর্দার, জামাল সর্দার গংরা  সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে  দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে  বেড়া  ভেঙ্গে পেলে ও সেখানে বেশ কয়েকটি গাছ কেটে পেলে।এক পর্যায়ে তারা গাপ্পার সরদার  ও মনির সর্দারের বাসায় হামলা চালায়।
এবিষয়ে আবুল খায়ের সর্দার বলেন, আমাদের বাড়ির সম্পত্তি নিয়ে তারা আমাদের বিরুদ্ধে মামলা করে।কিন্তু সেই মামলার রায় আমরা পেয়েছি। এখন আমরা আমাদের জায়গায় বেড়া দিছি।তারা সেই বেড়া ভেঙ্গে ফেলেছে। এবং বেশ কিছু গাছ কেটে পেলেছে।এমনকি এক পর্যায়ে তারা আমাদের বাড়ি ঘরে হামলা করেছে। আমরা অসহায় বলে তারা শক্তি দেখিয়ে আমাদের জায়গা দিয়ে রাস্তা নিছে।অথচ বাড়ির সবার যাওয়া আসার জন্য রাস্তা আছে তারা সেই রাস্তা দিয়ে যায়না।
প্রতিপক্ষ  মোস্তফা সর্দার বলেন,তারা আমাদের রাস্তায় বেড়া দিয়েছে। আমরা চেয়ারম্যান সাহেবকে জানিয়েছি উনি আমাদের বেড়া উঠিয়ে দিতে বলেছে আমরা বেড়া উঠিয়ে দিয়েছি।
ইউপি চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম পাটওয়ারী বলেন, তাদের একে অন্যের সাথে জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। আমারা তাদেরকে কাগজপত্র নিয়ে  আসতে বলেছি। বৃহস্পতিবার এটি নিয়ে আমারা বসব।
ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম