অর্থ ছাড়া সরকারি চাকরি পেলেন কৃষকের সন্তান রুমা আক্তার

জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ এর মহতী উদ্যোগ ও স্বচ্ছতার ফল

চাঁদপুর: বাবা একজন কৃষক। ২ভাই ২ বোনসহ ৬জনের সংসারে অভাব-অনটন, তবুও ছিলো পড়া-লেখার ইচ্ছা। পড়া-লেখা চালিয়ে সরকারি চাকরি করার ইচ্ছা ছিলো অনেক। কিন্তু অভাবের সংসারে সংসার চালানোই ছিলো কষ্টকর তার উপর পড়ালেখা! তাই নিজের পড়ালেখার খরচ চালাতে পাশাপাশি টিউশন করে অর্থ ইনকাম করতেন। কথা হয় নব নিয়োগপ্রাপ্ত ইউনিয়ন পরিষদের সচিব রুমা আক্তারের সাথে।

নিয়োগের বিষয়ে বুধবার (১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় কথা হয় নিয়োগপ্রাপ্ত রুমা আক্তার এর সাথে। রুমা হাজীগঞ্জ উপজেলার চারিয়ানি নাসিরকোর্ট গ্রামের মো. ইউসুফ বেপারী মেয়ে।

রুমা জানান, পড়ালেখার পাশাপাশি সরকারি বিভিন্ন চাকুরীর পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেছি। করোনাকালীন সময়ে আমার পরিবার অনেক আর্থিক সংকটে পড়ে যায়। একজন মেয়ে হিসেবে বিভিন্ন পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করা, প্রতিযোগিতায় টিকে থাকা এবং বিভিন্ন সামাজিক ও পারিপার্শিক অবস্থা মোকাবেলা করা খুবই কষ্টকর । এরকম পরিস্থিতিতে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের নিয়োগ পরীক্ষা স্বচ্ছ ও বৈধ নিয়োগের কারণে আমার পক্ষে চাকুরিটি পাওয়া সম্ভব হয়েছে। আমি সকলের নিকট দোয়া প্রার্থী, যেন সঠিক ভাবে আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করতে পারি।

নিয়োগ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ জানান, আলহামদুলিল্লাহ্ বিজয়ের মাসের ১ম দিনটি শুরু হল একটি ভাল কাজ দিয়ে। এদিনে চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার শাখার অধীন নবনিয়োগপ্রাপ্ত ০৭ জন ইউনিয়ন পরিষদ সচিব যোগদান করেন।

তিনি আরো জানান, স্বচ্ছতার সাথে আমি নিয়োগ পক্রিয়া সম্পন্ন করেছি। আমি চেয়েছি যোগ্যব্যাক্তিই যোগ্য স্থানে বসুক। কোন প্রকার তদ্বির ও অনৈতিক উপায় ছাড়াও যোগ্যতার ভিত্তিতে চাকরী পাওয়া যায় বিষয়টি সাধারণ মানুষ জানুক। এর ফলে চাকুরী প্রার্থীরা যোগ্যতা অর্জনের জন্য চেষ্টা করবে এবং অনৈতিক উপায় অবলম্বন থেকে বিরত থাকবে।

প্রসঙ্গত, চাঁদপুরে ইউনিয়ন পরিষদ সচিব শূন্যপদে নিয়োগ এক বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন হয়েছে। চাকরী প্রার্থী ও সাধারণ মানুষের ধ্যান ধারণা বাহিরে এসে এবার নিয়োগ পেয়েছে ৭জন ইউনিয়ন পরিষদ সচিব। বিষয়টি অবশ্যই শতভাগ প্রশংসার দাবী রাখে। সরকারি চাকরীর ক্ষেত্রে এভাবে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা থাকলে সাধারণ মানুষের অতীত ধারণা খুব দ্রুতই পরিবর্তন আসবে এবং চাকরীপ্রার্থীদের যোগ্যতা অর্জণের আগ্রহ বৃদ্ধিপাবে। এতে করে অসদুপায় অবলম্বনকারীরা এখন থেকে আর সুযোগ খুঁজবে না। সচিব পদে এবছরের নিয়োগ চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) অঞ্জনা খান মজলিশ এর মহতী উদ্যোগ ও স্বচ্ছতার কারণে সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। যার ফলে যোগ্যপ্রার্থীরা চাকুরীর জন্য নির্বাচিত হয়েছেন। নিয়োগ পেয়ে প্রার্থীরাও জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

ফম/এমএমএ/শাপ/

শাহরিয়া পলাশ | ফোকাস মোহনা.কম