অপতৎপরতার বিরুদ্ধে সমগ্র জাতি আজ সজাগ : রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম

হাজীগঞ্জে ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় সমাবেশ

ছবি: মহিউদ্দিন আল-আজাদ, ফোকাস মোহনা.কম।

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর): চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকালে হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজারস্থ চৌরাস্তায় এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম।
তিনি বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এদেশে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল ধর্মের মানুষ মিলেমিশে একত্রে বসবাস করে আসছেন। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা যখন উন্নয়ন ও অগগ্রতির দিকে ধাবিত হচ্ছি। ঠিক তখনি স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি সেই উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রাকে রুখে দিতে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।
তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রের অন্যতম মাধ্যম ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্টকরণ। কিন্তু তাদের কোন ষড়যন্ত্রই সফল হবেনা। প্রধানমন্ত্রীর সাহসি ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি এবং এগিয়ে যাবো। কারণ, জাতি আজ ঐক্যবদ্ধ। ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতির বাংলাদেশে যেকোনো ধরনের অপতৎপরতার বিরুদ্ধে সমগ্র জাতি আজ সজাগ। তারপরও সবাইকে সচেতন থাকাতে হবে।
এসময় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান। তিনি বলেন, আমরা আর কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা চাইনা। আমাদের সম্প্রীতি শত শত বছর টিকে থাকুক। আমাদেরকে সজাগ থাকতে হবে। কেউ যেন আমাদের ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে না পারে।
তিনি বলেন, কোন ধর্মেই মানুষের ক্ষতির কথা উল্লেখ নেই। আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে, তরুণ প্রজন্মকে সঠিক পথে পরিচালিত করতে হবে। আমরা আমাদের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রাকে কোন ক্রমেই ব্যাহত হতে দিবো না।
পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ বলেন, আমাদেরকে সতর্কতার সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করতে হবে। অনাকাঙ্ক্ষিত কোন ঘটনা দেখতে পেলে তার সত্যতা নিশ্চিত করতে হবে। কেউ আইন হাতে তুলে নিয়ে তাৎখনিক আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করতে হবে।
হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাশেদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, হাজীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন, হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদের খতিব ও পেশ ইমাম মুফতি আব্দুর রউফ, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়, সাধারন সম্পাদক তমাল কুমার ঘোষ, হাজীগঞ্জ উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রোটা. রুহিদাস বণিক প্রমুখ।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌ. মো. জাকির হোসাইন ও উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার সুনির্মল দেউরীর যৌথ উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশের শুরুতেই পবিত্র কোরআন মাজিদ থেকে তেলওয়াত করেন, হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা মো. আনাস এবং পবিত্র গীতা পাঠ করেন, পুরোহিত অমিত চক্রবর্তী।
এরপর স্বাগত বক্তব্য রাখেন, বীরমুক্তিযোদ্ধা আবু তাহের। বক্তব্য রাখেন, হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ। সম্প্রীতির এই সমাবেশে উপজেলার বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, রাজনৈতিক নেতা, সাংবাদিক, মসজিদের ইমাম, মন্দিরের পুরোহিত, বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন স্কুল, মাদরাসা ও কলেজের শিক্ষকসহ সর্বস্তরের জনগণ অংশ নেন।
ফম/এমএমএ/

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম